Google adsense কি? গুগল এডসেন্স থেকে মাসে হাজার ডলার আয় করুন

Google adsense কি? গুগল এডসেন্স থেকে মাসে হাজার ডলার আয় করুন

Google adsense কি? কিভাবে গুগলে এডসেন্স থেকে আয় করা যায় ? goolge adsense থেকে কত টাকা আয় করা যায়? কিভাবে গুগল এডসেন্স এর একাউন্ট খুলতে হয় ইত্যাদি প্রশ্ন আমাদের মাথায় এখন প্রতিনিয়তই এসে থাকে ।

আর আসবেই না কেন? এখন যে আমাদের চারপাশে google adsense নিয়ে এত বেশি আলোচনা হয়, এত বেশি ভিডিও, অডিও, ব্লগ পোস্ট, ফেসবুকে লেখালেখি হচ্ছে যে গুগল এডসেন্সকে(goolge adsense ) নিয়ে মানুষের কৌতুহল যেন আরো বেড়েই যাচ্ছে।

আর যারা যারা সেই কৌতুহলবসত গুগল এডসেন্স সর্ম্পকে সঠিকভাবে জানতে চান তাদের জন্য আমাদের আজকের এই আর্টিকেল।

আমি আশা করি আপনারা যদি আমার এই পুরো আর্কেলটি মনোযোগ দিয়ে পড়েন তাহলে গুগল এডসেন্স(google adsense) সর্ম্পকে আপনাদের আর কোন কৌতুহল থাকবে না।

কারণ এই সর্ম্পকে আজ আমি আলোচনা করতে যাচ্ছি গুগল এডসেন্স এর A to Z

আর্কেলটি পড়ার আগে যে আর্কেলগুলো অবশ্যই পড়ে নিবেন।

Google adsense কি?

Google adsense হলো গুগলের একটি বিশেষ বিজ্ঞাপন সার্ভিস । যার মাধ্যমে যে কোন কম্পানি বা ব্যক্তি তাদের নিজেদের পণ্যের বিজ্ঞাপন ছড়িয়ে দিতে পারে পুরো ইন্টারনেট জুড়ে।

এর জন্য আবশ্যই সেইসব কম্পানিদেরকে গুগলকে টাকা দিতে হয়। বিভিন্ন পণ্যের জন্য বিভিন্ন রেট দিতে হয় গুগল এডসেন্সকে তাদের পণ্যের বিজ্ঞাপন সারা ইন্টারনেট জুড়ে ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য।

এডসেন্স এই পণ্যের এড গুলো সারা ইন্টারনেট জুড়ে ছড়িয়ে দেয় কিভাবে?

গুগল এডসেন্স(google adsense) তাদের কাছে আশা বিভিন্ন পণ্যের বিজ্ঞাপন দাতা কম্পানি গুলোর বিজ্ঞাপন সারা দুনিয়া জুড়ে ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য এডসেন্স সাহায্য নেয় বিভিন্ন ব্লগ, ওয়েবসাইট , ইউটিউব এবং বিভন্ন এপ বা সফটওয়্যারের।

ধরুন আপনার একটি ব্লগ সাইট আছে যেখানে বেশ ভালোই ভিজিটর প্রবেশ করে প্রতিদিন তখন আপনার সাইটে গুগল এডসেন্স তাদের বিজ্ঞাপন প্রচার করবে আপনার অনুমতিক্রমে বিনিময়ে এডসেন্স এর সেই কম্পানির বিজ্ঞাপন থেকে উর্পাজিত আয় থেকে আপনাকে কিছু টাকা দিবে।

এটা সাধারণত ৬৮% এডসেন্স পাবলিশারদেরকে দিয়ে থাকে। অথাৎ সেখানে পাবলিশ করবে তার মালিককে।

ধরুন গুগল এডসেন্স (google adsense) একটি কম্পানির বিজ্ঞাপন আপনার সাইটে প্রচার বা পাবলিশ করে ১০০ডলার আয় করল তাহলে সেই ১০০ডলারের থেকে আপনাকে তারা ৬৮% অর্থাৎ ৬৮ডলার আপনাকে দিবে।

আর পৃথিবীতে হাজার হাজার ব্লগ রয়েছে এবং হাজার হাজার ইউটিউব চ্যানেল রয়েছে হাজার হাজার এপ রয়েছে যারা প্রতিদিন লক্ষ লক্ষ টাকার এড গুগল এডসেন্স(google adsense) থেকে তাদের নিজেরদের ব্লগ(blog) বা ওয়েবসাইটে(Website) বা ইউটিউব চ্যানেলে (Youtube channel) অথবা এপে (app) প্রচার করতেছে।

এবং এভাবে গুগল এডসেন্স (google adsense) তাদের কাছে দেওয়া কম্পানির এডগুলো থেকে উপার্জিত(earn) অর্থ(money) শেয়ার করার মাধ্যমে সারা দুনিয়া জুড়ে ছড়িয়ে দিচ্ছে।

এবং বর্তমানে এটা এত বড় একটি ইন্ড্রাস্টিতে পরিণত হয়েছে যে, সারা দুনিয়া জুড়ে এর সুখ্যাতি ছড়িয়ে পরেছে।

এবং তাই এখন আর গুগল এডসেন্সকে (google adsense) কারো কাছে যেতে হয় না। মানুষ জনই এডসেন্স এর কাছে আবেদন করে তাদের বিজ্ঞাপন এডসেন্স এর মাধ্যমে সারা দুনিয়ায় ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য এবং পাবলিশেরদেরও তাদের কাছে একাউন্ট খুলে আবেদন করতে হয়।

আপনি ও চাইলে গুগল এডসেন্স(google adsense) এর সুবিধাটি নিয়ে আয়(earn) করতে পারেন লক্ষ লক্ষ টাকা ।

আশা করি ইতি মধ্যে আপনারা খুব ভালোভাবেই বুজে গেছেন যে What is Google adsense অর্থাৎ Google adsense কি? এবং জেনে গেছেন যে গুগল এডসেন্স এর কাজ কি ও কিভাবে গুগল এডসেন্স(google adsense) টাকা দেয়।

গুগল এডসেন্সকে(google adsense) আপনি কি কি কাজে ব্যবহার করতে পারেন?

আপনার আমার মত এই রকম হাজার হাজার সাধারণ মানুষের সেবা দেওয়ার জন্যেই মূলত গুগল এডসেন্স(google adsense) কাজ করে থাকে।

তাই আপনি বা আমি চাইলেই আমাদের কাজে গুগল এডসেন্সকে(google adsense) ব্যবহার করে নিতে পারি খুব সহজেই।

আমরা দুই ভাবে গুগলকে এডসেন্সকে (google adsense) ব্যহার করতে পারি একটি হলো গুগল এডসেন্স এর মাধ্যমে নিজেরদের কম্পানির এড দিয়ে কম্পানির সেল বৃদ্ধি করতে পারি অথবা এডসেন্স এর এড নিজেরদের বিভিন্ন প্লাটফ্রমে পচার করে আয় করতে পারি।

কিভাবে নিজের কম্পানির প্রচারণা গুগল এডসেন্সের (google adsense) এর মাধ্যমে করব?

এর জন্য আপনাকে সবার প্রথমে একটি কম্পানি প্রতিষ্ঠা করতে হবে তারপর আপনি চাইলে খুব সহজেই সেই কম্পানিতে বিভিন্ন পণ্য উৎপাদন করতে পারেন এবং তা গুগল এডসেন্স(google adsense) এর মাধ্যমে ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দিয়ে আপনার কম্পানির মার্কেটিং এর কাজ করে ফেলতে পারেন এবং খুব অল্প সময়েই দেখবেন আপনার কম্পানির বেশ ভালো অবস্থানে পৌছে যাবে।

গুগল এডসেন্স এর মাধ্যমে আপনার কম্পানির এড দেওয়ার জন্য আপনি গুগল এডওয়ার ব্যবহার করতে পারবেন এটা নিয়ে অন্য একটি আটির্কেল বিস্তারিত আলোচনা করবো।

কিভাবে গুগলএডসেন্স প্রচার করে আয় করবো?

এর জন্য আপনাকে সবার প্রথমে এমন একটি প্লাটফ্রম তৈরি করতে যেখানে প্রতিদিন প্রচুর মানুষের আনাগোনা আছে। যেমন সেটা হতে পারে একটি ব্লগ সাইট (blog site) কিংবা ওয়েবসাইট(website) অথবা ইউটিউব চ্যানেল (Youtube channel) বা কোন এন্ডয়েট এপ (android app)।

তারপর আপনি সেই প্লাটফ্রমটির জন্য এডসেন্স (google adsense) এ আবেদন করবেন আপনার প্লাটফ্রমটি যদি গুগল এডসেন্স এর সকল নিয়ম মেনে চলে থাকে তাহলে খুব সহজেই আবেদন গ্রহণযোগ্য হয়ে যাবে তারপর আপনি গুগল এডসেন্স(google adsense) এর এড আপনার প্লাটফ্রমের বিভিন্ন জায়গায় দিয়ে প্রচার করবেন তারপর আপনার ভিজিটরের উপর আপনার আয় নির্ভর করবে।

প্রতি এক হাজার ভিজিটররের জন্য গুগল এডসেন্স(google adsense) কত টাকা দেয়?

আমরা জানি, যখন আমরা আামাদের তৈরি বিভিন্ন প্লটফ্রমে গুগল এডসেন্স(google adsense) এর বিজ্ঞাপন(ads) প্রচার করি তখন কিছু না কিছু টাকা আয় হয় যদি সেখানে ভিজিটর থাকে ।

তো আমাদের মাঝে অনেকেই আছে বিশেষ করে যারা একদমি নতুন তারা অনেকেই জানেই না যে গুগল আসলে ঠিক কত টাকা দেয়।

তাই তারা মাঝেমধ্যেই আমাদের কাছে প্রশ্ন করে থাকে ‍গুগল এডসেন্স(google adsense) আসলে কত টাকা দেয় বা আমি কত টাকা আয় করি গুগল এডসেন্স(google adsense) এর মাধ্যমে। কিংবা প্রতি এক হাজার ভিজিটরের জন্য গুগল এডসেন্স কত টাকা দেয়।

এটার উত্তর আসলে কেউই সঠিকভাবে দিতে পারবে না কারণ এটা অনেক কিছুর উপর নির্ভর করে। তাই সবার আয় সব ক্ষেত্রে সমান হয় না।

তবে আমি আমার পার্সনাল অভিজ্ঞতা থেকে আপনাদেরকে কিছুটা ধারনা দিতে পারি।

ধরুন আপনার একটি ব্লগ সাইট(blog site) রয়েছে এবং সেখানে প্রতিদিন এক হাজার ভিজিটর(visitor) প্রবেশ করে ।

আপনার ব্লগে যদি গুগল এডসেন্স(google adsense) এর বিজ্ঞাপন থাকে তাহলে ধরলাম সেই এক হাজার জন ভিজিটরের মধ্যে ৩০-৫০জন সেই বিজ্ঞাপনে ক্লিক করে থাকে প্রতিদিন।

এখন আমি ধরে নিলাম গড়ে প্রতি ক্লিকে গুগল এডসেন্স আপনাকে 0.2ডলার দিল ।

তাহলে 0.2*30 = 6 ডলার অথবা 0.2*৫০ = 10 ডলার।

তাহলে প্রতিদিন আপনার ইনকাম হচ্ছে ৬ থেকে ১০ ডলার অথাৎ মাসে সেটা দাড়ায় 6*30=180 ডলার থেকে 10*30=300 ডলার।

বাংলা টাকা যা প্রতি মাসে হবে 180*80=১৪,৪০০ টাকা থেকে ২৪,০০০ টাকা পর্যন্ত।

এখানে আমি একটি বাংলা সাইটের প্রতি ১হাজার ভিজিটররে কত আয় হতে পারে সেটা সর্ম্পকে একটু ধারণা দেওয়ার চেষ্টা করলাম আমার নিজস্ব অভিজ্ঞতা থেকে। তবে এটা যদি ইংরেজি ব্লগসাইট(blogsite) হয় তাহলে এই এমাউন্টা হবে দুই থেকে তিন গুণ বেশি।

এরপর ইউটিউবের কথা বলি ইউটিউবে টাকা খুবই কম দেয় কারণ সেখানে এডগুলো খুবই কম দামি হয়ে থাকে।

তাই ইউটিউবের বাংলা কন্টেন্টের জন্য সাধারণত প্রতি ক্লিকে ০.০০০১থেকে০.৩ ডলার পর্যন্ত দেয় থাকে। তবে ব্লগের তুলনায় ইউটিউবের ভিজিটর অনেক বেশি । তাই মোট হিসেব করলে ইউটিউবেই বেশি ইনকাম । তবে ব্লগেও কোন অংশে কম নয়।

গুগল এডসেন্স (google adsense) থেকে আয়কৃত অর্থ কিভাবে তুলতে হয়?

ধরলাম আপনি বেশ কয়েকদিন বা বেশ কয়েক মান ধরে কাজ করে কিছু একটা এমাউন্ট বা টাকা আয় করলেন গুগল এডসেন্স(google adsense) থেকে ।

এখন পালা হলো আপনার হাতে সেই টাকা গুলো পাবেন কিভাবে।

এটা খুবই সহজ কারণ বর্তমানে গুগল এডসেন্স(google adsense) এর টাকা গুলো উঠাতে বা আপনার হাতে পেতে কোন সমস্যায়ই পোহাতে হবে না।

আপনার নিকটতম যে কোন ব্যাংক একাউন্টের মাধ্যমেই আপনি গুগল এডসেন্স(google adsense) এর টাকা উঠাতে পারবেন।

এর জন্য আপনার এডসেন্স এ যখন ১০ডলার আয় হবে তখন তারা আপনার ঠিকানায় একটি ভেরিফিকেশন কোড দিয়ে লেটার(letter) পাঠাবে। সেটা সাধারণত ২থেকে ৪সপ্তাহের মধ্যেই আপনার হাতে পেয়ে যাবেন।

তারপর সেই লেটারে পাঠানো পিন দিয়ে খুব সহজেই আপনার গুগল এডসেন্স(google adsense) একাউন্টি ভেরিফাই করে নিতে পারবেন।

এবং তারপরেই আপনার ব্যাংক একাউন্টের সব ইনফরমেশন আপনার এডসেন্স এর সাথে যোগ করে দিতে পারবেন। এবং প্রতি মাসে যদি আপনার এডসেন্স এর টাকা ১০০ডলারের বেশি হয় তাহলে এডসেন্স অটোমেটিক আপনার ব্যাংক একাউন্টে সেই ডলার পাঠিয়ে দিবে।

আর এই ভাবেই আপনি ‍খুব সহজেই আপনার গুগল এডসেন্স(google adsense) মাধ্যমে উপার্জিত টাকা নিজের হাতে পেতে পারেন।

সবশেষে

আশা করি আটির্কেলটি ভালো লেগেছে।

সকলকে অসংখ্য ধন্যবাদ পুরো আটির্কেলটি মনোযোগ দিয়ে পড়ার জন্য ।

যে কোন হেল্প বা যে কোন ধরনের পরামর্শের জন্য অথবা কোন অভিযোগ থাকলে তা আমাদেরকে জানাতে পারেন সরাসরি ফেসবুকের মাধ্যমে।

আমাদের সকল আপডেট সবার আগে ফেসবুকে পেতে এখনি লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

Share This