আপনার পাসওয়ার্ড এর সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত করুন।

পাসওয়ার্ড কি / পাসওয়ার্ড কাকে বলে?

পরিবারের সবাই বাড়ির বাইরে বেড়াতে গেলে সাধারণত আমরা বাড়ির দরজায় তালা লাগিয়ে যাই।

কেন?

বাড়ির নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য, তাই না। এখন একটু চিন্তা করেন, তালা জিনিসটা আসলে কী ?

যে কেউ যেকোন চাবি দিয়ে আপনারা বাড়ির তালাটি খুলতে পারে না । কারণ পৃথিবীর প্রত্যেকটি তালার জন্য ‍ভিন্ন ভিন্ন চাবি রয়েছে।

এক তালায় চাবি দিয়ে আন্য একটি তালা খোলা যায় না।  এভাবে আমরা তালা দিয়ে আমাদের বাড়িসহ অন্যান্য ‍জিনিসের ‍নিরাপত্তা ‍নিশ্চিত করি ।

এখন অবশ্য নম্বর দেওয়া এব ধরনের তালা দেখা যায়, যেখানে নম্বর মিলিয়ে তালাটি খুলতে হয়।

এক্ষেত্রে নম্বরটি চাবিব কাজ করে। কিন্তু ‍ডিজিটাল প্রযুক্তির এ যুগে আরো অনেক কিছুর নিরাপত্তা নিয়ে আমাদের চিন্তা করতে হবে।

আপনারা নিশ্চই বুঝে ফেলেছেন ‍কিসের কথা বলছি ।

ঠিক ধরেছেন, আমরা আমাদের তথ্য ও উপাত্তের নিরাপত্তার কথা বলছি ।

আইসিটির এ যুগে আমাদের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য, উপাত্ত ও সফটওয়্যার ‍নিরাপত্তায় এব ধরনের তালা দিতে হয়।

এ তালার নাম পাসওয়ার্ড

পাসওয়ার্ড এর গুরুত্ব

আমরা অনেকেই নিশ্চই ইতিমধ্যেই পাসওয়ার্ড তৈরি ও ব্যবহার করতে জানি ।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুুক্তির ব্যবহার এখন সব জায়গায়। আমাদের দেশ ও এর ব্যতিক্রম নয়। এ প্রসার যত বাড়ছে ‍নিরাপত্তার প্রশ্নটি তত গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠছে । আমাদের ব্যক্তিগত সকল তথ্য যেমন ব্যাংক একাউন্ট, আয়করের হিসাব , চাকরির বিভিন্ন তথ্য ইত্যাদি ছাড়াও নানা তথ্য উপাত্ত এখন ডিজিটাল ব্যবস্থার আওতায় আসছে ।

এ ছাড়াও আমাদের আইসিটি যন্ত্রপাতি যেমন কম্পিউটার . ল্যাপটপ, ট্যবলেট কিংবা মোবাইল ফোনগুলো সফটওয়্যার দ্বারা পরিচালিত হয়।

আমরা যখন ইন্টারনেট ব্যবহার করি তখন পৃথিবীর যেকোনো প্রান্তের কম্পিউটার বা আইসিটি যন্ত্রের সাথে যোগাযোগ করতে পারি । তেমনি অন্য যে কেউ আমাদের যন্ত্রের সাথে যোগাযোগ করতে পারে। তথ্য আদান প্রদান করতে পারে। এর মাধ্যমে আমাদের ব্যক্তিগত গোপনীয় তথ্য ও অন্যের কাছে চলে যেতে পারে কিংবা কেউ আমাদের যন্ত্রের সফটওয়্যারের ক্ষতি করতে পারে। এ অবস্থা থেকে রক্ষা পেতে আমাদের নিরাপত্তা প্রয়োজন।

এসব তথ্য ও আমদের যন্ত্রের সফটওয়্যারসমূহ রক্ষা করতে পাসওয়ার্ডের কোন বিকল্প নেই।

পাসওয়ার্ড দেওয়া থাকলে যে কেউ ইচ্ছা করলেই আমাদের তথ্য ‍নিতে পারবে না বা ক্ষতি করতে পারবে না।

তবে এখানে একটি কথা অবশ্যই জেনে রাখতে হবে যদি কেউ বুদ্ধি খাটিয়ে আমরা যে পাসওয়ার্ড দিয়েছিলাম তা ধরে ফেলতে পারে তাহলে সে আমাদের সকল তথ্য নিয়ে ‍নিতে পারবে । তথ্য নষ্ট করতে চাইলে নষ্ট করতে পারবে। অনেকটা ডুপ্লিকেট চাবি বানিয়ে তালা খুলে ফেলার মতো। তাই পাসওয়ার্ড তৈরি করতে আমাদের দক্ষ হতে হবে।

অন্য কেউ ধারণা করতে পারে এমন সহজ পাসওয়ার্ড যেমন তৈরি করা যাবে না আবার নিজেই মনে রাখতে পারবো না এমন পাসওয়ার্ড  তৈরি করা ও যাবে না।

আপনার পাসওয়ার্ডটি দুর্বল হলে কি কি সমস্যা হতে পারে।

বেশিরভাগ মানুষ 123456 বা 654321 বা abcdef এ ধরনের পাসওয়ার্ড তৈরি করে। ফলে পাসওয়ার্ড জেনে যাওয়া বা ধরে ফেলা সহজ হয়। যদিও অনেক ব্যবহারকারী অনন্য বা unique পাসওয়ার্ড তৈরি করাকে ঝামেলার কাজ মনে করে। তথ্য উপাত্তের দিকটি বিবেচনায় নিলে unique বা মৌলিক পাসওয়ার্ড তৈরি করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ।

সার্ভার, কম্পিউটার বা যেকোনো আইসিটি যন্ত্রে রক্ষিত তথ্য ও উপাত্তের নিরাপত্তা বিধানের সাথে সাথে গোপনীয়তা বজায় রাখার কাজটিও পাসওয়ার্ড করে থাকে। আপনার পাসওয়ার্ড যদি unique না হয় তবে:

  1.  দুর্বল পাসওয়ার্ডের কারণেই ভাইরাস সহজেই আক্রমণ করতে পারে।
  2.  হ্যাকারদের সহজেই হ্যাক করার সুযোগ করে দিতে পারে। এতে তোমার ব্যাংকে রাখা টাকা ছাড়াও গুরুত্বপূর্ণ তথ্য অন্যের হাতে চলে যেতে পারে।
  3. তোমার সহজ পাসওয়ার্ডের কারণে আইসিটি যন্ত্রে রক্ষিত তথ্য নষ্ট করার সুযোগ তৈরি হতে পারে ।

কিভাবে মৌলিক পাসওয়ার্ড তৈরি করা যায়?

একটি একটি সৃজনশীল কাজ। তোমার সৃজনশীলতাই তোমার তথ্য বা সফটওয়্যারের নিরাপত্তা ও গোপনীয়তা রক্ষা করতে পারে। তবে এক্ষেত্রে কিছু নিয়ম মেনে চললে কাজটি করতে আমদের অনেক সুবিধা হবে।

 unique বা মৌলিক পাসওয়ার্ড তৈরির সময় আমাদের লক্ষ্য রাখতে হবে।

  • নিজের বা পরিবারের কারো নাম বা ব্যক্তিগত কোনো তথ্য সরাসরি ব্যবহার না করা। যদিও পাসওয়ার্ডটি মনে রাখার ক্ষেত্রে এটি আমাদের সাহায্য করে থাকে।
  • সংখ্যা, চিহ্ন ও ‍শব্দ ব্যবহারের ক্ষেত্রে ছোট হাতের আক্ষর ও বড় হাতের অক্ষর মিশিয়ে দিলে ভালো হয়। এতে পাসওয়ার্ডটি সর্ম্পকে অন্যের ধারণা করা অনেক কঠিন হয়ে যাবে।
  • পাসওয়ার্ডটি যেন অবশ্যই একটু বড় আকারের হয়।
  • পাসওয়ার্ড মনে রাখার জন্য আইসিটি যন্ত্র বা ডায়রি বা অন্য কোথাও পাসওয়ার্ড বা এর অংশবিশেষ লিখে না রাখা;
  • পাসওয়ার্ড মনে রাখার জন্য ‍নিজের পছন্দের একটি সংকেত ব্যবহার করা। এটি হতে পারে প্রিয় কবিতা, গল্প, লেখক, বৈজ্ঞানিক আবিষ্কার বা কোনো ঐতিহাসিক ঘটনা ।

এ কাজগুলোর সাথে যদি সৃজনশীলতা যোগ হয় তবে পাসওয়ার্ডটি হয়ে উঠতে পারে  unique পাসওয়ার্ড

আমাদের পাসওয়ার্ডগুলো হতে পারে এমন-

  • MoriTeChHina_AmiSunDarVhubanE(প্রাণ-রবীন্দ্রনাথ_ঠাকুর)
  • AmAr_AchE_wateR(হুমায়ন_আহমেদ)
  • 2BornoT2B_tHatisThe?(To be or not to be, that is the question-From Shakespeare)
  • 4Scote&7yrsAGO(Four score and seven years ago-From the
    Gettyshburg Address)

তবে পাসওয়ার্ড অবশ্যই মনে রাখার মত হওয়া উচিত।

প্রায়শ পাসওয়ার্ড পরিবর্তন ‍করাও একটি জরুরী কাজ। এর মাধ্যমে আমরা আমাদের তথ্য ও সফটওয়্যারের নিরাপত্তা ও গোপনীয়তা রক্ষা করতে সক্ষম হব।

 

সুত্র: ICT book (9-10)

Share This

COMMENTS

Wordpress (2)
  • comment-avatar
    মাসউদুর রহমান 1 year

    মাশাআল্লাহ। জাযাকুমুল্লাহ।